বাবাকে বুদ্ধিজীবী কবরস্থানে দাফনের ইচ্ছে ছেলের


প্রকাশিত:
২২ জানুয়ারী ২০১৯ ১১:২৯

Print Friendly and PDF
আহমেদ ইমতিয়াজ বুলবুল ও তার ছেলে সামির আহমেদ

বীর মুক্তিযোদ্ধা, দেশবরেণ্য গীতিকার, সুরকার, সংগীত পরিচালক আহমেদ ইমতিয়াজ বুলবুল মঙ্গলবার (২২ জানুয়ারি) সকালে মারা গেছেন। বাবা আহমেদ ইমতিয়াজ বুলবুলকে বুদ্ধিজীবী কবরস্থানে দাফন করার ইচ্ছে প্রকাশ করেছেন ছেলে সামির আহমেদ।

বুলবুলের ছেলে সামির আহমেদ বলেন, “আজই আমার আব্বাকে দাফন করতে চাই। আব্বাকে মিরপুর বুদ্ধিজীবী কবরস্থানে মুক্তিযোদ্ধাদের জন্য সংরক্ষিত স্থানে দাফন করার অনুমতি দেয়ার জন্য প্রধানমন্ত্রীর কাছে অনুরোধ জানাচ্ছি।”

সামির জানান, তার বাবা দীর্ঘদিন ধরেই অসুস্থ, হৃদ্‌রোগে ভুগছিলেন। তার হার্টের ধমনিতে ৮টা ব্লক ছিল। গেল বছরের মে’তে হার্টের রিং পরানো হয়। সম্প্রতি তার শরীর ভালো যাচ্ছিল না। সোমবার (২১ জানুয়ারি) চিকিৎসকের কাছে যেতে চেয়েছিলেন, কিন্তু পারেননি। আজ ভোর ৪টার দিকে তিনি নিজেই রেকর্ডিস্ট রোজনকে মুঠোফোনে অসুস্থতার কথা জানান। খবর পেয়ে সবাই তাকে অ্যাম্বুলেন্সে করে দ্রুত হাসপাতালে নিয়ে যান। কিন্তু চিকিৎসক তাকে মৃত ঘোষণা করেন।

মঙ্গলবার সকালে ঢাকার আফতাবনগরে নিজ বাসায় মারা যান আহমেদ ইমতিয়াজ বুলবুল। তার বয়স হয়েছিল ৬৩ বছর।

ইউনিভার্সেল মেডিকেল কলেজ হাসপাতালের ডা. আশীষ চক্রবর্তী জানান, সকাল সোয়া ৬টার দিকে আহমেদ ইমতিয়াজকে হাসপাতালে আনা হয়। এসময় প্রয়োজনীয় পরীক্ষা শেষে কর্তব্যরত চিকিৎসকরা তাকে মৃত ঘোষণা করেন। হাসপাতালে আনার আগেই তার মৃত্যু হয়েছে। তিনি হৃদরোগে আক্রান্ত হয়েছিলেন।

আহমেদ ইমতিয়াজ একুশে পদক, জাতীয় চলচ্চিত্র পুরস্কার ও রাষ্ট্রপতির পুরস্কারসহ অসংখ্য পুরস্কারে ভূষিত হন। তিনি কিশোর বয়সে মহান মুক্তিযুদ্ধে অংশ নেন। তিনি অসংখ্য জনপ্রিয় গানের গীতিকার, সুরকার ও সংগীত পরিচালক।

কান্ট্রিনিউজ২৪/এমআর

              আরো পড়ুন