সর্দি-কাশির সমস্যা সমাধান ৫ উপায়ে


২ জানুয়ারী ২০১৯ ১৬:৪৭

আপডেট:
২৬ মার্চ ২০১৯ ১৪:৪৩

ইন্টারনেট থেকে

এখন ঋতু বদলের সময়। গরম শেষে শীতের আগমন। হঠাৎ করে সর্দি-কাশির সমস্যা হতেই পারে। এ ঋতুতে শরীরের রোগ প্রতিরোধ ক্ষমতা কম থাকে, তাই সর্দি-কাশি সবচেয়ে বেশি হয়ে থাকে। ।

হাঁচি, কাশি সঙ্গে মাথা যন্ত্রণা, চোখ-নাক দিয়ে পানি পড়া এ সব শীতে খুব স্বাভাবিক সমস্যা। এমন অসুখে ডাক্তারের কাছে গেলে টাকা খরচ। সংক্রমণ ঠেকাতে আস্থা রাখুন কিছু ঘরোয়া উপায়ে। জেনে নিন কী কী।

১. হাত ধোয়ার অভ্যাস : হাত ভালো করে সাবান বা হ্যান্ড ওয়াশ দিয়ে ধোয়ার অভ্যাস গড়ে তুলুন। কোন কিছু খাওয়ার আগে ও পড়ে হাত ভালো করে ধুয়ে নিন। এতে করে সর্দি-কাশি সৃষ্টিকারী ভাইরাস-ব্যাকটেরিয়ার বিস্তার করতে পারবে না।

২. চারপাশ পরিস্কার রাখুন : ল্যাপটপ, মোবাইল ফোন, কাপ-বাটি, ব্যবহার্য সকল কাপড়, চাদর ভালোভাবে ধুয়ে রাখুন। এতে করে সর্দি-কাশি সৃষ্টিকারী রোগের জন্য দায়ী ভাইরাস-ব্যাকটেরিয়ার বিস্তার রোধ করা যাবে। হাঁচি-কাশির সময় কাপড় বা রুমাল দিয়ে নাক মুখ ঢাকুন।

৩. প্রতিদিন গোসল করুন : নিয়মিত গোসলের ফলে শরীর পরিচ্ছন্ন থাকবে এবং অ্যালার্জি সৃষ্টিকারী এলারজেন ও বিভিন্ন ক্ষতিকর ব্যাকটেরিয়া থেকে ত্বক মুক্ত থাকবে। গোসলে হালকা গরম পান ব্যবহার করতে পারেন, শরীরে ব্যথা থাকলে সেক্ষেত্রেও আরাম পাওয়া যাবে।

৪. দারুচিনি-আদা চা : দারুচিনি-আদা ঠান্ডা লাগা প্রতিরোধে কাজ করে। দারুচিনি এমনিতেই প্রাকৃতিক অ্যান্টিবায়োটিক। আদা চা দেহের রোগ প্রতিরোধ ক্ষমতা বৃদ্ধি করে। মধুও এইক্ষেত্রে একই ভাবে সাহায্য করে। তাই সর্দি-কাশি হলে আদা-চা, মধু খাওয়া যেতে পারে। গরম পানিতে কয়েক টুকরো দারুচিনি ফেলে তা ফুটিয়ে পান করুন। সাইনাস ও মাইগ্রেনের সমস্যাও কমিয়ে আরাম দেয় এই পানীয়।

৫. গোল মরিচ- মধু সেবন : গোল মরিচ গলা বসে যাওয়া, নাক বন্ধ ইত্যাদি সমস্যা থেকে আরাম যেমন দেয়। ভাল ফল পেতে এতে কিছুটা মধু মেশাতে পারেন।