আমরা পর্যাপ্ত রোহিঙ্গার জন্য সীমান্ত খোলা রেখেছিলাম: পররাষ্ট্রমন্ত্রী


৬ ফেব্রুয়ারি ২০১৯ ১৯:২৭

আপডেট:
১৯ ফেব্রুয়ারি ২০১৯ ১৭:৩৯

ইন্টারনেট থেকে

পররাষ্ট্রমন্ত্রী এ কে আবদুল মোনেম জানান, মিয়ানমার থেকে নতুন করে রোহিঙ্গা অনুপ্রবেশ ঠেকাতে বাংলাদেশের সীমান্ত বন্ধ করে দেওয়া হয়েছে। মূলত নতুন করে শুরু হওয়া সহিংসতার পরিপ্রেক্ষিতে এই সিদ্ধান্ত নেওয়া হয়েছে।

আজ বুধবার জাতিসংঘের শরণার্থীবিষয়ক সংস্থার বিশেষ দূত অ্যাঞ্জেলিনা জোলি ও জাতিসংঘ মহিসচিবের মিয়ানমারবিষয়ক বিশেষ দূত ক্রিস্টিন এস বার্গনারের সাথে বৈঠকের পর সাংবাদিকদের এ কথা জানান তিনি।

তিনি বলেন, ‘আমরা পর্যাপ্ত রোহিঙ্গার জন্য সীমান্ত খোলা রেখেছিলাম। নতুন করে আর নিতে চাই না। তাই আমাদের সীমান্ত বন্ধ করে দিয়েছি।’ আর এখন রোহিঙ্গাদের জন্য অন্য দেশগুলোর সীমান্ত খুলে দেওয়ার বিষয়টি বিবেচনা করা ভালো।

পররাষ্ট্রমন্ত্রী জানান, তিনি (অ্যাঞ্জেলিনা জোলি) বিশ্বের ‘অন্যতম কণ্ঠস্বর’। তাকে (জোলি) বলা হয়েছে, বাংলাদেশ রোহিঙ্গাদের নিরাপদ প্রত্যাবাসন চায়। বাংলাদেশ চায়, রোহিঙ্গারা নিরাপদে তাদের নিজের জায়গা রাখাইনে চলে যাক।

উল্লেখ্য, খবর পাওয়া যাচ্ছে মিয়ানমারে নতুন করে সহিংসতা শুরু হয়েছে। এজন্য এখন রোহিঙ্গা মুসলিম ছাড়াও বৌদ্ধ ও হিন্দু সম্প্রদায়ের লোকজন প্রাণভয়ে পালাচ্ছেন। এমনকি এরা বাংলাদেশে প্রবেশের চেষ্টা করছে।

কান্ট্রিনিউজ২৪/এএইচ