ক্ষতিকারক: মটরশুঁটি, টমেটো, শসা


২৮ ডিসেম্বর ২০১৮ ১৫:২৭

আপডেট:
২৮ ডিসেম্বর ২০১৮ ১৫:৫৯

মানসিক অবসাদের অন্য একটি কারণ টমেটো-শসা!
শীতকালটা ভেজিটেরিয়ানদের জন্য খুবই আনন্দের মাস। এ সময়টাই যেন সবজি ভোজের উৎসবে মেতে থাকা।

শুধু নিরামিষভোজীরাই নয়, আমিষ প্রিয়রাও শাকসবজির দিকে ঝুঁকেন এ সময়। সহজলভ্য ও স্বল্পমূল্যে শিশিরে ভেজা তাজা শাকসবজিই খাবারের প্রধান প্রসঙ্গ হয়ে ওঠে।

অনেকে তো কাঁচাই খেয়ে ফেলেন কিছু কিছু সবজি। তবে বিজ্ঞানীরা বলেন-ভিটামিনযুক্ত প্রিয় এসব শাকসবজির মধ্যে রয়েছে অনেক ক্ষতির সম্ভাবনা।কিন্তু আমাদের দৈনন্দিন খাদ্য তালিকায় থাকা এসব শাকসবজি শরীরের জন্য অত্যন্ত ক্ষতিকর।

এক প্রতিবেদনে বলা হয়েছে-অনেকেই মটরশুঁটি কাঁচা খান। আর রান্নায় তো মটরশুঁটি দেয়া হয়ে থাকে।কিন্তু এ মটরশুঁটি চিন্তাশক্তি লোপ বা নষ্ট করে দিতে পারে। এমনটিই দাবি করা হয়েছে সাম্প্রতিক মার্কিন গবেষণায়।

মার্কিন গবেষক চিকিৎসক স্টিফেন গুন্ড্রির বলেন, বেশ কিছু উদ্ভিদ রয়েছে, যেগুলো নিজেদের মধ্যে ল্যাক্টিন উৎপন্ন করতে সক্ষম।এই ল্যাক্টিন তাদের ‘ডিফেন্স মেকানিজম’-এর অঙ্গ। এই ল্যাক্টিন কীটপতঙ্গের হাত থেকে ওই গাছগাছালিগুলোকে বাঁচাতে সাহায্য করে।এই ল্যাক্টিনের সংস্পর্শে এলে কীটপতঙ্গের শরীর কার্যক্ষমতা হারিয়ে ফেলে, আড়ষ্ঠ হয়ে যায়।ল্যাক্টিন রক্তের মাধ্যমে মস্তিষ্কে পৌঁছালে তা আমাদের চিন্তাশক্তি দুর্বল বা নষ্ট করে দিতে পারে।

তা হলে আমাদের প্রিয় মটরশুঁটিতেই রয়েছে এমন ক্ষতিকর উপাদান! বিজ্ঞানী স্টিফেন জানান, শুধু মটরশুঁটি নয় টমেটো, শসা, সয়াবিন, চিনা বাদাম, কাজু, শুকনো লঙ্কার মতো শস্যদানায় ল্যাক্টিনের প্রভাব বেশি থাকে।যে কারণে সেই গবেষণা অনুযায়ী-টমেটো ও শসার সালাদ খাচ্ছেন আর নিজের অজান্তেই হারাচ্ছেন আপনাদের চিন্তাশক্তি!

কান্ট্রিনিউজ২৪/এএইচ