সবুজ পাহাড়ে স্বর্ণ মন্দির


কান্ট্রি নিউজ ডেস্ক

Published: 2018-07-21 10:39:27 BdST | Updated: 2018-11-15 10:30:23 BdST

ফাইল ফটো

খুব বেশি দূরের পথ নয়। যা একটু ইচ্ছে আর ইচ্ছের তীব্রতা। যেতে যেতে একেবারে দক্ষিণে। বাংলাদেশের পাহাড়ি অঞ্চলের সীমানায়। স্বর্ণ মন্দির। স্বর্ণজাদির আসল নাম বুদ্ধধাতু চেতী। সোনালী রং এর সুন্দর কারুকাজে তৈরি এ মন্দির দর্শনেই মন পবিত্র হয়ে যায়। 

বান্দরবন শহর থেকে মাত্র ৩ কিলোমিটার দূরে বালাঘাটাস্থ পুরপাড়া নামক স্থানে সুউচ্চ পাহাড়ের চূড়ায় এ জাদিটি অবস্থিত যা বৌদ্ধদের কাছে পবিত্র এক তীর্থস্থান। সম্পূর্ন সোনালী আর মেরুন রং এ সজ্জিত এই মন্দিরটি দেখতে মনে হবে যেন স্বর্ণ দিয়ে মোড়ানো। কিন্তু এটা আসলে স্বর্ণ দিয়ে নির্মিত মন্দির নয়। মন্দিরটি দেখেতে সোনালী রঙের হওয়ায় সবাই একে স্বর্ণ মন্দির নাম আখ্যায়িত করে। 

স্বর্ণ মন্দিরের বাহ্যিক সৌন্দর্যের পাশাপাশি এর অবকাঠামোগত সৌন্দর্যও দেখার মত। মন্দিরের বাইরের অংশে ভিন্ন ভিন্ন প্রকোষ্ঠে তিব্বত, চীন, নেপাল, ভিয়েতনাম, কম্বোডিয়া, ভূটান, মায়ানমার,কোরিয়া, জাপান ইত্যাদি দেশের শৈলীতে সৃষ্ট ১২টি দন্ডায়মান বুদ্ধ আবক্ষ মূর্তি এখানে নতুন মাত্রা যোগ করেছে। আর মন্দিরের অভ্যন্তরে কাঠের উপর অসাধারণ সুন্দর রিলিফ ভাষ্কর্য কর্ম মায়ানমারের কাঠের শিল্প-কর্মের ঐতিহ্যের কথা স্মরণ করায়। 

মন্দির চত্তরের গড়ুড় স্তম্ভ ও পাখি আপনাকে আকাশে ডাকবে। মন্দির থেকে দেখবেন পূর্বদিকে বান্দরবান শহর ও চারপাশে শুধু পাহাড় আর পাহাড়।মায়ানমার থেকে শিল্পী এনে এটি তৈরি করা হয়। ২০০৪ সালে এর নির্মাণ কাজ সম্পন্ন হয়। সোনালী রংয়ের অপূর্ব নির্মাণ শৈলী ও আধুনিক ধর্মীয় স্থাপত্য নকশার নিদর্শনস্বরুপ এ স্থানটি সবার খুবই আকর্ষনীয় এবং একটি জনপ্রিয় পর্যটন স্পট। পর্যটকরা বান্দরবন ঘুরতে এলে স্বর্ণমন্দির না দেখে চলে যায় এমন নজির নেই।  

এখান থেকে সাঙ্গু নদী, বেতার কেন্দ্রসহ বান্দরবানের প্রাকৃতিক সৌন্দর্য সহজেই উপভোগ করা যায়। এ মন্দিরের পাহাড়ের চূড়ায় রয়েছে ঐতিহ্যবাহী এক পুকুর। বৌদ্ধরা এ পুকুরকে সম্মানের চোখে দেখে; কারণ এটি যে দেবতা পুকুর! ধর্মীয় অনুষ্ঠান ছাড়াও পূর্ণিমায় এখানে জড়ো হন হাজার হাজার পুণ্যার্থী। 

বান্দরবন শহরের যে কোন হোটেলে থাকতে পারেন। এখানে অনেক ভাল মানের হোটেল রয়েছে। বান্দরবনে পর্যটন কর্পোরেশনের একটি হোটেল আছে মেঘলাতে। এখানে থাকতে পারেন। বুকিং এর জন্য ফোন করতে পারেনঃ ০৩৬১-৬২৭৪১ এবং ০৩৬১-৬২৭৪২।  হোটেল ফোর স্টারঃ এটি বান্দরবান বাজারে অবস্থিত। বুকিং ফোন:-০৩৬১-৬৩৫৬৬, ০১৮১৩২৭৮৭৩১,০১৫৫৩৪২১০৮৯। হোটেল থ্রী স্টারঃ এটি বান্দরবান বাস স্টপের পাশে অবস্থিত। নীলগিরির গাড়ী এই হোটেলের সামনে থেকে ছাড়ে। এটি ৮/১০ জন থাকতে পারে ৪ বেডের এমন একটি ফ্ল্যাট। বুকিং ফোনঃ ০১৫৫৩৪২১০৮৯। হোটেল প্লাজা বান্দরবান: এটি বাজারের কাছে অবস্থিত। বুকিং ফোন:- ০৩৬১-৬৩২৫২। 

স্বর্ণ মন্দিরে যাবার আদর্শ সময় হল বিকেল বেলা। তখন সূর্যের আলোতে মন্দির এক ভয়াবহ সুন্দর রূপ ধারন করে। বিকাল ৬টা পরে মন্দিরে প্রবেশ করা যায় না। তাই ৬ টার আগেই ঘুরে দেখে আসুন। শর্টপ্যান্ট বা লুঙ্গি পড়ে এখানে প্রবেশ করা যায় না। তাই যাবার আগে একটি মাথায় রাখুন। মন্দিরে প্রবেশের পরে এসে সম্মান করুন। ভিক্ষুদের আদব কায়দা মেনে চলুন। ভীতরে জুতা নিয়ে প্রবেশ নিষেধ।

সকল প্রকাশিত/প্রচারিত কোনো সংবাদ, তথ্য, ছবি, আলোকচিত্র, রেখাচিত্র, ভিডিওচিত্র, অডিও কনটেন্ট কপিরাইট আইনে পূর্বানুমতি ছাড়া ব্যবহার করা যাবে না।


পর্যটন বিভাগের সর্বাধিক পঠিত


বর্তমানে পৃথিবীর সবচেয়ে নিরাপদ শহর জাপানের রাজধানী টোকিও। দ্বিতীয় স্থা...

পর্যটন | 2017-10-14 16:21:58

পর্যটন ভিসা চালু করার পরিকল্পনা নিয়েছে সৌদি আরব। এ ভিসা চালুর কার্যক্র...

পর্যটন | 2017-10-30 20:09:51

ঢাকার শেরে বাংলা নগরে অবস্থিত জাতীয় সংসদ ভবন কমপ্লেক্স আন্তর্জাতিক স্...

পর্যটন | 2017-11-22 11:15:24

নদীর কিনারা ছুঁয়ে বিশাল কুল বা বরইয়ের বাগান, খেজুর বাগান, এঁকেবেঁকে চ...

পর্যটন | 2017-10-13 17:26:22

পৃথিবীর সপ্তম আশ্চর্যের মধ্যে একটি হলো তাজমহল। বিশ্বের বিভিন্ন প্রান্ত...

পর্যটন | 2017-10-04 20:46:59

মানুষের প্রাত্যহিক জীবনে নানা ব্যস্ততার মাঝেও বিনোদন পিয়াসু মানুষ খুজে...

পর্যটন | 2018-04-03 09:19:12

মনপুরা দ্বীপ, প্রাকৃতিক সৌন্দর্যের অপরূপ লীলাভূমি। চতুর্দিকে মেঘনা নদী...

পর্যটন | 2017-10-20 18:05:03

ভারতে বিশ্ববিখ্যাত স্থাপনা তাজমহল নিয়ে এক নোংরা রাজনীতির খেলা শুরু হয়...

পর্যটন | 2017-10-16 19:11:35